Header Ads

মুভি রিভিউ বাজ: দেব-রুক্মিনী অভিনীত ‘কবীর’ ছবির রিভিউ!

কবীর!

[রিভিউ : টালিউড]

’কবীর’  - ছবির দর্শক রিভিউ!


বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে ১৩ এপ্রিল টালিউড বক্স অফিসে মুক্তি পেয়েছে দেব ও রুক্মিনী মিত্র অভিনীত থ্রিলারধর্মী ছবি ‘কবীর’। বড় পর্দায় এ ছবিটি দেখে দর্শকরা তাদের সামাজিক মাধ্যমে কেমন রিভিউ করছে সেটাই এ পোস্টের মাধ্যমে তুলে ধরা হল। ’রঙধারা’ সামাজিক মাধ্যম ঘেটে যুক্তিসঙ্গত রিভিউ গুলোই কেবল তুলে ধরার চেষ্টা করেছে।

মোট রিভিউ সংগ্রহ : ৫
পজিটিভ রিভিউ : ৫
নিরেপক্ষ রিভিউ : ০
নেগেটিভ রিভিউ: ০
রিভিউ গড় : ৪.২৫/৫
রিভিউ সারমর্ম : ১০০% পজিটিভ


মুভি রিভিউ বাজ :

রঞ্জনা দে ’ফেইসবুক’-এর নিজস্ব টাইমলাইনে বলেছেন :
“Hats off to the captain of the ship who executed #Kabir with such brilliance - Aniket Chattopadhaya such a brave and brilliant movie is #Kabir. It's such an apt example of how thriller done right.“

শুভদীপ খাজলি ‘গুলগাল’ সাইটে বলেছেন :
"সিনেমার গল্প নিয়ে কোনরকম আভাস দেব না তবে এটা যে মৌলিক গল্প তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই আর সিনেমার শেষে এক জনৈক ব্যক্তি বললেন, “ইন্টারভ্যাল অবধি যেটা  ভেবেছিলাম সেটা তো হলই না! গল্প তো অন্যদিকেই চলে গেল(হাসি)!” হ্যাঁ, বুঝতেই পারছেন একটা জোরালো টুইস্ট আছে সিনেমার শেষে এবং অবশ্যই একটা বার্তা যা আজকের দিনে দাঁড়িয়ে আরও বেশি করে প্রাসঙ্গিক!"

ঊর্মি মুখার্জী ‘ফেইসবুক’ -এর নিজস্ব টাইমলাইনে বলেছেন:
“সিনেমা টা দেখলামএবং বলতে কোনো দ্বিধা নেই ,অত্যন্ত ভালোই লাগলো। বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে যে এই ধরণের সিনেমা আজকাল হচ্ছে,সেটা দেখে খুব অহলাদিত হলাম।সিনেমাটির প্রায় বেশিরভাগ অংশ ট্রেন এর মধ্যে shoot করা হয়েছে এবং সেই কারণেই হয়তো প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সিনেমাটিতে একটা রুদ্ধশ্বাস গতি ছিল,যেটা সিনেমাটিতে প্রয়োজনও ছিল। কাহিনীর শুরুটাই হয়েছিল মুম্বাই তে serial bomb blast নিয়ে এবং কাহিনী সেই সূত্র ধরেই এগিয়েছে। গল্পটি এখানে বলবনা,তাহলে সিনেমাটি দেখার উত্তেজনাটা হারাবেন। তাই চাইবো সেই উত্তেজনা টা সবাই প্রেক্ষাগৃহে গিয়েই অনুভব করুন!"

পড়ুন : দেব-এর টাটকা সব খবর!

তুহিন দাশ ‘ফেইসবুক’ -এর নিজস্ব টাইমলাইনে বলেছেন:
“অদ্ভুত এক শৈলীর মিশেল,অসাধারণ চরিত্র বাছাই,বেশ গায়ের লোমখাড়া করানো উত্তেজনার সাক্ষী রইলাম হলের ভেতর গিয়ে। রুক্মিণী এর দারুণ নিখুত অভিনয়,নিজের ৩য় ছবি তে এক অসাধারণ চরিত্রের সুযোগ পেয়ে নিজের পুরোটা প্রদর্শন করেছে সে। এই মুভিতে তাই দৃষ্টিটা বেশি পরিমানে আকর্ষণ করেছে, দেব মনে করোনা যেন কিছু। তবে তোমার অভিনয়ের দক্ষতা বা ধাপ টা যে কি পর্যায়ে চলে গেছে সেটা বলার অবকাশ রাখে না আর। তোমার সেই অট্ট হাসি,মূহুর্তের মধ্যেই নিজের চরিত্রের পরিবর্তন, মুখের ভাব-ভঙ্গির পরিবর্তন, সব ই যেন আবার বাধ্য করল তোমার প্রেমে পড়তে। কাহিনীর নির্ভেজাল গতি কখনোই এটা মনে হতে দেবেনা দর্শক কে যে তারা একঘেয়ে অবস্থায় আছেন। থ্রিলার যে কি তা বুঝিয়েছে কবীর।জেহাদ এর আসল অর্থ বুঝিয়েছে দেব এর এই কবীর। দাঙ্গা হিন্দুরা করেনা,দাঙ্গা মুসলমানরা করেনা,দাঙ্গা করে দাঙ্গাবাজরা। মোরা একবৃন্তে দুটি কুসুম হিন্দু -মুসলমান।এই যে বার্তা দিতে চেয়েছে দেব দা সেটাই অভিনবত্বের শিরোপা পরিয়েছে কবীর এর মাথায়।”

রোহান আবির ‘ফেইসবুক’ -এর নিজস্ব টাইমলাইনে বলেছেন
ছবিটির প্রথম অর্ধ আহামরি কিছু না হলেও কিছু Blasting এর সিন লোমহর্ষক ছিল। কিন্তু দ্বিতীয় অর্ধ অনবদ্য। এখানেই ফুল মার্কস পাওয়ার যোগ্য ছবিটি।

বিশেষ দ্রষ্টব্য :
এ পোস্টে প্রকাশিত সকল রিভিউ সামাজিক সাইট থেকে সরাসরি সংগৃহীত! তবে কেবল মাত্র রিভিউ-এর মূল অংশ এবং শব্দের ভুলে কিছুটা সংশোধন আনার চেষ্টা হয়ে থাকে।

অনেক সময় অনুমতি না নিয়ে রিভিউ গুলো প্রকাশ করা হয়ে থাকে; সে ক্ষেত্রে ’রঙধারা’ আগে থেকে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছে।

আপনার রিভিউ প্রকাশ করার জন্য এখানে ক্লিক করতে পারেন; সেই সাথে এ পোস্টে  প্রকাশিত আপনার রিভিউ মুছে ফেলার জন্য এখানে ক্লিক করতে পারেন।

’রঙধারা’ সংগ্রহকৃত রিভিউগুলো নিরেপক্ষভাবে প্রকাশ করার চেষ্টা করেছে; ফলে কারো কোন ক্ষতি করার অভিলাষ ‘রঙধারা’র নেই।

আরো পড়ুন :

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.