বক্সঅফিস সংঘর্ষ : ঈদে জিতের ‘সুলতান’ নাকি শাকিবের ‘ভাইজান’?

জিৎ শাকিব খানের বক্সঅফিস লড়াই
ভাইজান বনাম সুলতান!

[বক্সঅফিস সংঘর্ষ : টালিউড/ঢালিউড]

জিতের-এর ‘সুলতান’ এবং শাকিব খানের ‘ভাইজন’ বক্স অফিস সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছে।


২০১৮ সালের ঈদকে কেন্দ্র করে আবারো ব্যস্ত হয়ে পরেছে দুই বাংলার ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। ঢালিউডের পাশাপাশি টালিউডেও ঈদে বড় ছবি মুক্তি দেওয়া হয়। ফলে ঈদে দুই বাংলার দর্শকরাও অপেক্ষায় থাকে হলে গিয়ে ছবি দেখার জন্য। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও ঈদে বড় বাজেটের ছবি মুক্তি পাচ্ছে এবং একাধিক ছবি বক্সঅফিস সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছে।

কয়েক বছর ধরে ঈদে দুই বাংলার দুই সুপারস্টার জিৎ ও শাকিব খান মুখোমুখি সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছে। বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ব্যস্ত এ দুই সুপারস্টার ঈদে বড় বাজেটের ছবি নিয়ে বক্সঅফিস সংঘর্ষে লিপিবদ্ধ হয়। ২০১৬ ও ২০১৭ সালে এ দুই তারকা বক্সঅফিস সংঘর্ষে লিপ্ত হলেও, কেউ নিরাশ হয় নি। দুই জনের ছবিই বক্সঅফিসে সুপারহিট ব্যবসা করে। এবারও তেমনি আবাস পাওয়া যাচ্ছে। এবার জিৎ ’সুলতান’ নিয়ে যেমন তৈরি, তেমনি শাকিব খান ‘ভাইজান’ নিয়ে ব্যস্ত। তবে বক্সঅফিসে শীর্ষে তো একজনই থাকবে! ঈদে মুক্তির আগেই দুই তারকা, তাই ব্যস্ত নিজেদের ছবিকে শীর্ষে রাখতে।


মুক্তির আগে যে ছবি এগিয়ে থাকছে :


সর্বোচ্চ ব্যবসায় :

দুই বাংলার সর্বমোট ব্যবসা হিসেবে নিলে ঈদে আবারো জিৎ এগিয়ে থাকছে। কেননা কলকাতার পাশাপাশি বাংলাদেশেও জিৎ সর্বাধিক জনপ্রিয় একজন সুপারস্টার। ২০১৬ সালের ‘বাদশা’ এবং ২০১৭ সালের ‘বস ২’ কলকাতার পাশাপাশি বাংলাদেশেও ব্লকবাস্টার ব্যবসা করে। ফলে এবারও ‘সুলতান’ ভাল ব্যবধানে এগিয়ে থাকবে। অন্যদিকে ঈদে ব্যক্তি শাকিব খান এগিয়ে থাকলেও, সিনেমার ‘ভাইজান’ দুই বাংলার ব্যবসার দিক দিয়ে সামান্য পিছিয়ে থাকছে। ব্যক্তি শাকিব খান এগিয়ে থাকছে কারণ, বাংলাদেশে ঈদে প্রতি বছর শাকিব খানের একাধিক ছবি মুক্তি পাই। ফলে শাকিব ভক্তরা ভাগ হয়ে যাওয়ার কারণে ‘ভাইজান’-এর ব্যবসাও ভাগ হয়ে যাবে। ফলে সর্বমোট ব্যবসায় জিৎ-এর ‘সুলতান’ শাকিবের ‘ভাইজান’ থেকে এগিয়ে থাকছে।


স্টার কাস্টে :

স্টার কাস্টে শাকিব খানের ‘ভাইজান’ কিছুটা এগিয়ে। ’ভাইজান’-এ শাকিব নিজেই ডাবল রোলে হাজির হচ্ছে। সেই সাথে অভিনেত্রী হিসেবে নেওয়া হয়েছে ব্লকবাস্টার শ্রাবন্তী এবং জনপ্রিয় পায়েলকে। শ্রাবন্তী-শাকিবের ব্লকবাস্টার জুটির পাশাপাশি পায়েল-শাকিবের নতুন রসায়ন বক্সঅফিসে ভালই আগ্রহ সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। অন্যদিকে জিতের ‘সুলতান’ জুটিও খুব একটা ফেলবার নয়। বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা সাহা মীমের সাথে প্রথমবারের মত জিতের রসায়ন দর্শকদের মনে নতুন আগ্রহের সৃষ্টি করেছে। তবে ’ভাইজান’ ছবিতে একসাথে পুরাতন এবং নতুন জুটি থাকায়, ‘সুলতান’ কিছুটা পিছিয়ে থাকছে।


অ্যাকশান-কমেডি ফ্যাক্ট:

অ্যাকশানপ্রিয় দর্শকরা প্রথমেই লুফে নিবে জিতের ‘সুলতান’ ছবিটি। কেননা ছবিটির ফার্স্ট লুকে ধুন্ধুমার অ্যাকশানের উপস্থিতি ফোকাস করা হয়েছে। সেই সাথে জিতের নতুন অবতার, দর্শকদের নতুন কিছু দেখার আহবানই করে রেখেছে। অন্যদিকে শাকিবের ‘ভাইজান’ ছবির ফার্স্ট লুকে কমেডির ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। ডাবল কমেডি দেখার জন্য দর্শকরা ‘ভাইজান’এর প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠেছে। তবে কমেডির পাশাপাশি ‘ভাইজান’ ছবিতে অ্যাকশানও থাকছে। অর্থাৎ ‘ভাইজান’ কমেডি-রোমান্টিক-অ্যাকশান নির্ভর ছবি! কিছুটা চেনা রূপেই শাকিব খানকে দেখা যাবে। তবে জিতের ’সুলতান’ অ্যাকশান-কমেডি-রোমান্টিক ধাঁচের। অর্থাৎ কিছুটা নতুন রূপে ‘সুলতান’-এর জিৎ বড় পর্দায় আসছে। ফলে ‘ধরণের’ দিক দিয়ে ‘সুলতান’ এগিয়ে।


সংগীত :

দুইটি ছবির গানই চমৎকার হওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। যদিও ‘সুলতান’ ছবির একটি গানটি মুক্তি পেয়েছে; এবং ‘মাশ আল্লাহ’ টাইটেলের গানটি ইউটিউবে ব্লকবাস্টার হিট হয়ে যায়। তবে ‘ভাইজান’ ছবির গান মুক্তি না পেলেও, গানগুলো যে সুপার-ডুপার হিট হবে এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। সংগীতের দিক দিয়ে তাই কোন ছবিই যুতসই এগিয়ে থাকছে না।

সারমর্ম :

বাংলাদেশে শাকিবের খানের ‘ভাইজান’ এগিয়ে থাকলেও, জিতের ‘সুলতান’ খুব একটা ছাড় দিবে না। বরং শাকিবের একাধিক ছবি মুক্তির ফ্যাক্টটি জিতের ‘সুলতান’ কাজে লাগানো সুযোগ পাবে। তবে অন্যদিকে কলকাতায় জিতের ‘সুলতান’ বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে থাকছে। কেননা কলকাতায় শাকিব এখনো উল্লেযোগ্য পরিমাণের জনপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়নি। তবে আশার বিষয়, কলকাতায় শাকিবের জনপ্রিয়তা আশানুরূপ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

দর্শক ভোট :

মুক্তির আগেই সামাজিক সাইট গুলোতে লড়ছে শাকিব খানের ’ভাইজান’ এবং জিতের ‘সুলতান’। দুই ছবির ফার্স্ট লুক মুক্তির সাথে সাথেই ভাইরাল হয়ে যায়। ফলে কোন স্থানে জিতের ‘সুলতান’ এগিয়ে থাকছে তো কোন স্থানে শাকিবের ‘ভাইজান’ এগিয়ে থাকছে। ‘রঙধারা’য় কে এগিয়ে, এখন সেটাই দেখার বিষয়। আপনি যদি জিৎ ভক্ত হন, তবে নিচে ’সুলতান’ এ ভোট দিন; আর যদি শাকিবের ভক্ত হন, তবে নিচে ‘ভাইজান’ এ ভোট দিন।

ঈদে কোন ছবি দেখবেন?
শাকিবের ‘ভাইজান’ = ৬৫% ভোট
জিতের ‘সুলতান’ = ২৪% ভোট
অন্য তারকার ছবি = ১১% ভোট


দর্শক মন্তব্য :

জিতের ‘সুলতান’ কিংবা শাকিবের ‘ভাইজান’ নিয়ে দর্শকদের কি অভিমত, নিচে কমেন্ট বক্সে দেখুন। সেই সাথে আপনার কি অভিমত, তা নিচে জানান। পোস্টটি ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন! কেননা এতে আপনার প্রিয় তারকার ছবিটিই এগিয়ে থাকবে।

২টি মন্তব্য

নামহীন বলেছেন...

ভাইজানকে টপকে সুলতান সেরা হবে!!!!

নামহীন বলেছেন...

KONOTAI SERA HOBE NA!!!! DUTOI FLOP MARBE....

Blogger দ্বারা পরিচালিত.