রিভিউ : ‘নাকাব’, হরর-অ্যাকশান-থ্রিলার একসাথে মিলে বাম্পার হিট!

রিভিউ : ‘নাকাব’, হরর-অ্যাকশান-থ্রিলার একসাথে মিলে বাম্পার হিট!
Naqaab!

[রিভিউ : ঢালিউড]

’নাকাব’ ছবির অতিথি রিভিউ!


অবশেষে এক সপ্তাহ অপেক্ষার পর দেখার সৌভাগ্য হল শাকিব খানের ‘নাকাব’ ছবিটি। বিশেষ করে কলকাতায় মুক্তির পর ছবিটি নিয়ে আগ্রহ ছিল তুঙ্গে। যদিও এর আগে ট্রেইলার দেখেই ফিক্স করেছিলাম ছবিটি দেখব। তবে বাংলাদেশে এক সপ্তাহ পরে মুক্তি দেওয়ায় আগ্রহটা প্রচন্ড আকার ধারণ করেছিল। সেই আগ্রহ কতটুকু পূর্ণতা লাভ করেছে, সেটাই এবার আলোচনা করা যাক।

কাহিনী :

না। কাহিনী বলা যাবে না। কাহিনী বললে ছবিটি দেখার আগ্রহ কিছুটা হলেও কমে যেতে পারে দর্শকদের। তবে কাহিনী নিয়ে এটা বলা যায়, আপনি যেমনটা ভাববেন, তার ঠিক ১৮০ডিগ্রি উল্টো ছবিটির কাহিনী। অর্থাৎ আপনার ভাবনাকে পুরোপুরি পরাজিত করবে ছবিটি। আমার ক্ষেত্রে ঠিক এমনটাই হয়েছে। ছবিটির কাহিনী আমাকে ধরে রেখেছে পুরো শেষ অবধি।


অভিনয় :

একটা কথা বার বার শুনে আসছি যে শাকিব খানকে আমরা ঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারছি না। ’নাকাব’ ছবিতে শাকিব খানের অভিনয় দেখে আবারও ঠিক একই প্রশ্ন উঠবে; তার কোন সন্দেহ নেই। ‘নাকাব’ ছবিতে শাকিব খান তার সেরা অভিনয় উপহার দিয়েছে-এমনটাই আমার বিশ্বাস। যদিও নুসরাত জাহান-সায়ন্তিকার অভিনয় ছিল স্বাভাবিক, তবে রুদ্রনীল ঘোষের অভিনয় আলাদা করে নজর কেড়েছে।

সংগীত :

’নাকাব’ ছবির সংগীত ছিল যথারীতি গতানুগতিক। তবে ব্যাকগ্রাউন্ড সাউন্ড বেশ আকর্ষণীয়। বিশেষ করে ভীতিকর মুহূর্ত কিংবা কমেডি মুহূর্তগুলোর শব্দসংযোজন আলাদা করে আকর্ষণ করবে।


সর্বশেষ :

নাকাব’ আপনি কি জন্য দেখবেন? সোজাকথা যে ছবি আপনার মনের খোরাক পূরণ করবে, সেটাই তো দেখা উচিত! ‘নাকাব’ আপনার মনের খোরাক পূরণ করবে বলেই আমার মনে হয়েছে। ফলে আপনি যদি শাকিব ভক্ত নাও হন, তাও আপনার জন্য আমন্ত্রণ রইল; হলে গিয়ে দেখে আসবেন ছবিটা। আশা করি ছবিটি দেখার পর আমাকে ধন্যবাদ দিবেন।

নিজস্ব রিভিউ : ৪.৫/৫ স্টার!

রিভিউ লেখক : আদিত্য।

আপনিও যদি রিভিউ প্রকাশ করতে চান, তবে পাঠিয়ে দেন ‘রঙধারা’য়।
আপনার ফেসবুক বন্ধুদের জানাতে ক্লিক করুন!  এ রিভিউ নিয়ে কোন মতামত থাকলে, নীচে স্ক্রল করুন!

আরো পড়ুন :

Blogger দ্বারা পরিচালিত.