Header Ads

কিছু সংস্থা বলছে ’নাকাব’ বক্স অফিসে ব্যর্থ; আসলেই কি তাই?

Shakib Khan's Naqaab Box Office Report
নাকাব!

[বক্স অফিস : ঢালিউড]

বাংলাদেশে ’নাকাব’ ছবির সর্বশেষ বক্স অফিস খবর!


শাকিব খান অভিনীত ‘নাকাব’ ২১ সেপ্টম্বর ২০১৮ সালে সমগ্র কলকাতার প্রায় শতাধিক হলে মুক্তি পাওয়ার এক সপ্তাহ পর বাংলাদেশে মুক্তি পায়। অর্থাৎ ২৮ই সেপ্টম্বর ২০১৮ সালে ‘নাকাব’ সমগ্র বাংলাদেশের ১১৩টি হলে একযোগে মুক্তি পায়। ট্রেইলারে ঝড় তোলা ’নাকাব’ বাংলাদেশের বক্স অফিসে কেমন করছে, সেটাই এবার আলোচনা করা যাক।

উদ্বোধনী দিনে ’নাকাব’ প্রত্যাশা মাফিক ব্যবসা করতে পারে নি। বিশেষ করে সেই দিন বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে এশিয়া কাপের ফাইনাল ম্যাচ থাকায়, দর্শক ম্যাচটাকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে। ফলে শাকিবের ছবি হিসেবে উদ্বোধনী দিনে যে একটা উত্তেজনা দেখা যেত হলগুলোতে, ২৮ই সেপ্টম্বর তা অনেক হলে দেখা যায় নি।


সপ্তাহের বাকী দিন গুলোতে সাধারণত হল ব্যবসা খুব একটা ভাল যায় না। ‘নাকাব’-এর ক্ষেত্রেও তেমনটা হয়েছে। তবে যতটুকু ব্যবসা হয়েছে, তা মোটামুটি সন্তোষজনক বলা যায়। বিশেষ করে কোরবানের ঈদ পরবর্তী বড় ছবি হিসেবে ‘নাকাব’ অনেক হল মালিকদের মুখে হাসি ফুটাতে সক্ষম হয়েছে। তবে মফস্বলে অনেক হলে ব্যবসা কিছুটা কমতির দিকে ছিল।

ইতোমধ্যে বেশ কিছু সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী ‘নাকাব’ খুব বাজে ব্যবসা করেছে বলে প্রকাশ করা হয়েছে। তবে যতটুকু বাজে ব্যবসা বলা হয়েছে, ততটুকু বাজে ছিল না ছবিটি। বিশেষ করে যারা হলে ছবিটি উপভোগ করেছে, তাদের মধ্যে সিংহভাগ ছবিটির প্রশংসা করেছে। যার ফলে ছবিটির ‘ওয়ার্ড অব মাউথ’ ছিল বেশ ভাল। যার অর্থ ছবিটি দেখার জন্য অন্যকে উৎসাহিত করা হয়েছে অনেক বেশি। তবে ‘নাকাব’ নিয়ে উক্ত সংস্থার মধ্যে এক ধরণের নেগেটিভ ধারণা দেওয়ার প্রবণতা দেখা গেছে। এমন ধারণার পেছনে কিছু কারণও ছিল। কারণগুলো অন্য একটি পোস্টে সম্ভব হলে আলোচনা করা হবে।


সিনেমা : নাকাব

অভিনয় : শাকিব খান, নুসরাত জাহান, সায়ন্তিকা
শুভমুক্তি : ২৮ সেপ্টম্বর ২০১৮ (বাংলাদেশ)
উদ্বোধনী স্ক্রিন : ১১৩টি
৭দিনে সর্বমোট আয় : ০.৬০-0.৭০ কোটি (সম্ভাব্য)
বক্স অফিস স্ট্যাটাস : চলমান

আরো পড়ুন :


বি.দ্র: এ পোস্টটি নিয়ে সহজে কমেন্ট করতে ‘ফেইসবুক’ অপশনে ক্লিক করুন! সেই সাথে আপনার বন্ধুদের জন্য ফেইসবুকে শেয়ার করুন!

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.